কালারমারছড়ার তারেক চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে পুলিশ সুপারের কাছে জমি দখলের অভিযোগ

images-2-1.jpg

বার্তা পরিবেশক :
কালারমারছড়ার চেয়ারম্যান তারেক’র বিরুদ্ধে ভুমিদস্যুতা ও চাঁদাবাজীর অভিযোগ করেছেন কালামারছড়ার প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা ছগির আহমদ। তিনি গতকাল বুধবার কক্সবাজার পুলিশ সুপার বরাবরে এ অভিযোগ করেন। অভিযোগকারী কালারমারছড়ার ফকিরজুম পাড়ার মৃত আবদুল আলীর পুত্র ছগির আহমদ অভিযোগে জানান, কালারমারছড়ায় তিনি একজন আওয়ামী লীগের নিবেদিত কর্মী হিসাবে পরিচিত। গত ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থীকে ভোট দেওয়ায় আমার উপর ক্ষিপ্ত হয় তারেক বাহিনীর প্রধান তারেক। তাই প্রতিশোধ পরায়ন হয়ে তান্ডব লিলা চালাচ্ছে তার লালিত সন্ত্রাসিরা। তারেক’র নেতৃত্বে দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় সন্ত্রাসি বাহিনী গঠন করে চুরি, ছিনতাই, রাহাজানি, নারী ধর্ষণ, ঘরবাড়ি জালিয়ে দিয়ে লুটপাট ও চাষের জমি জবর দখল করে চলেছে। এরা এলাকায় ভুমিদস্যু হিসাবে চিহ্নিত। ইতোমধ্যে কালিগঞ্জ মৌজার বিভিন্ন মানুষের অন্তত ১ হাজার একর জমি জবর দখল করেছে। এতে আমার জমি রয়েছে সাড়ে ৬ একর। তিনি অভিযোগে আরো জানান, তার এক পুত্র সৌদি আরব, এক পুত্র মালয়েশিয়ায় এবং অন্য দুই পুত্র চকরিয়ায় ব্যবসা করেন। উল্লেখিত সন্ত্রাসিরা আমার নামীয় বিএস খতিয়ান- ৭১৯-১৯১৩-১৯১২ ও ১৯১১ এর আন্দরে অন্তত সাড়ে ৬ একর জমি জবর দখল করেছে। চেয়ারম্যান তারেক এর কাছে আকুতি মিনতি করলেও তিনি উল্টো প্রাণ নাশের হুমকি দিচ্ছেন। বিষয়টি উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ হোছাইন ইব্রাহীমকে অবহিত করা হয়েছে। এমন অবস্থায় জীবন নাশের আশঙ্কায় আমার বর্গা চাষীরা আমার সত্বদখলীয় জমিতে চাষ করতে পারছেনা। প্রতিদিন তারেক বাহিনীর সন্ত্রাসিরা অস্ত্রের মহড়া দিচ্ছে। বিভিন্ন লোকজনের উপর হামলা, গুলি বর্ষণ ও সন্ত্রাসি কার্যক্রম চালাচ্ছে সন্ত্রাসিরা। তাই এই বাহিনীর বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা না হলে এই সন্ত্রাসিরা কালারমারছড়াকে সন্ত্রাসিদের জনপদ হিসাবে গড়ে তুলবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top