পেকুয়ায় মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলায় ৫ম দিনে বক্তারা মুক্তিযুদ্ধের অসম্প্রদায়ীক চেতনা সর্বস্তরে ছড়িয়ে দেয়া হবে

ZahirChakaria1-24.12.2017.docx.jpg

চকরিয়া অফিস :
পেকুয়ায় মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলার মাধ্যমে এলাকার মানুষ মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে অনেক না জানা তথ্য জানতে পারছে। এই মেলার মাধ্যমে একদিকে মুক্তিযুদ্ধের অসম্প্রদায়ীক চেতনা সাধারণ মানুষের কাছে ছড়িয়ে দেয়া হচ্ছে, অন্যদিকে এলাকার সাধারণ মানুষকে বিনোদন দেয়া হচ্ছে। পেকুয়ায় সর্ব প্রথম মুক্তিযুদ্ধের এই বিজয় মেলার কারণে পেকুয়াসহ আশেপাশের এলাকায় প্রাণচাঞ্চল্য ফিরে এসেছে। এ মেলায় মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিরোধী কোন কিছু চলছে না, চলতে দেয়া হবে না। যারা মুক্তিযুদ্ধের এই বিজয় মেলার বিরোধীতা করছে তারা না জেনে করছে। আর যারা ইচ্ছে করে অকারণে এ মেলার বিরোধীতা করছে তারাই মুলত স্বাধীনতা বিরোধী। এ মেলার মাধ্যমে সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ডসহ সরকার তথা জননেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিশন তুলে ধরা হচ্ছে। গত ২৪ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় পেকুয়া কলেজ মাঠে অনুষ্ঠিতব্য মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলার ৫ম দিনে বক্তারা এসব কথা বলেছেন। পেকুয়া মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা উদযাপন পরিষদের উদ্যোগে আয়োজিত এই স্মৃতিচারণ মুলক অনুষ্টানে সভাপতিত্ব করেন পেকুয়া মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা উদযাপন কমিটির কো চেয়ারম্যান পেকুয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতা মাশেক আহমদ। মাষ্টার হানিফ চৌধুরী ও মোঃ এনাম মেম্বারের সঞ্চলনায় অনুষ্টিত এই স্মৃতিচারণ মুলক অনুষ্টানে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য বিজয় মেলা উদযাপন পরিষদের চেয়ারম্যান এস এম গিয়াস উদ্দিন। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিজয় মেলার কো চেয়ারম্যান, পেকুয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সহসভাপতি, চকরিয়া প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক জহিরুল ইসলাম, পেকুয়া উপজেলা মুক্তিযুদ্ধা কমান্ডার মাষ্টার ছাবের আহমদ, বিজয় মেলা পরিষদের সদস্য সচিব, জেলা পরিষদের সদস্য, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম, বক্তব্য রাখেন বিজয় মেলা পরিষদের কো চেয়ারম্যান শহীদুল্লাহ বিএ, বিজয় মেলার কো চেয়ারম্যান, পেকুয়া উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা কাজিউল ইনসান, কো চেয়ারম্যান মুফিজুর রহমান, পেকুয়া উপজেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি এইচএম নুরুল আবছার, স্মৃতিচারণ মুলক অনুষ্ঠানে বক্তব্যের পাশাপাশি দেশাত্মবোধক গান পরিবেশন করেন কাজিউল ইনসান, গোলাম রব্বান কাওয়ালী, নদী চক্রবর্তী, শামশুদ্দিন, বিভিন্ন বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীরা। এ মেলা আরও সপ্তাহ ব্যাপী চলবে বলে মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা উদযাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দ জানিয়েছেন। অত্যান্ত শান্তিপূর্ণ ভাবে ও বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্যদিয়ে এ মেলা অনুষ্টিত হচ্ছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top