ডাবলের পথে মুমিনুল

mominul20180109183026.jpg

কক্সবাজার ডেস্ক :

ওয়ানডে স্কোয়াড থেকে বাদ পরার পরপরই জ্বলে উঠলেন মুমিনুল হক। বিসিএলের প্রথম দিনই হাঁকিয়েছেন দারুণ এক সেঞ্চুরি। সেঞ্চুরিটি এখন ডাবলে রূপ নেওয়ার অপেক্ষায়। বিকেএসপিতে মুমিনুল হকের ১৬৯ রানের সুবাদে ইসলামী ব্যাংক ইস্ট জোন টস জিতে ব্যাটিং করতে নেমে প্রাইম ব্যাংকের বিপক্ষে করেছে ৫ উইকেটে ৩৪০ রান। প্রথম দিনের লড়াইয়ে অনেকটাই এগিয়ে ইসলামী ব্যাংক।

ব্যাটিংয়ে নেমে দিনের শুরুতেই লিটনকে হারায় ইসলামী ব্যাংক। সৌম্যর বলে বোল্ড হয়ে ২০ রানে সাজঘরে ফিরেন লিটন। তিনে নেমে শুরু থেকেই মুমিনুল ছিলেন ছন্দে। উইকেটে সেট হয়ে দারুণ সব শটে সাজাতে থাকেন নিজের ইনিংস। আরেক ওপেনার ইমতিয়াজ (৩৩) তাকে সঙ্গ দেন দলীয় ৮০ রান পর্যন্ত।

মধ্যাহ্ন বিরতির পর ৭১ বলে মুমিনুল তুলে নেন ফিফটি। ফিফটি থেকে সেঞ্চুরিতে পৌঁছান অল্প সময়েই। এজন্য খেলেন ৫৫ বল। চা-বিরতির আগে ৯৮ রানে অপরাজিত ছিলেন। বিরতির পরের ওভারেই প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ১১তম সেঞ্চুরির স্বাদ পান।

মুমিনুল এক প্রান্তে রানের চাকা সচল রাখলেও ইসলামী ব্যাংকের অন্যান্য ব্যাটসম্যানরা সেট হয়ে আউট হচ্ছিলেন। মোহাম্মদ আশরাফুল (১৩), ইয়াসির আলী (৩৩) ও অলোক কাপালি (১৯) সাজঘরে ফিরেন দ্রুতই।

শেষ সেশনে ইসলামী ব্যাংক উইকেট হারায় মাত্র ১টি। মুমিনুলের সঙ্গে ১১৩ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়েন জাকির হাসান (৪৭)। ১৬৯ রানের ইনিংসটি মুমিনুল সাজিয়েছেন ১৮ চার ও ২ ছক্কায়। ডাবল সেঞ্চুরির স্বাদ পেতে মুমিনুলকে করতে হবে ৩১ রান। বুধবার ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ডাবল সেঞ্চুরির স্বাদ পান কিনা সেটাই দেখার।

আলো স্বল্পতায় বিকেএসপিতে খেলা হয়েছে ৮৩ ওভার। মাঝে ২৭ মিনিট খেলা বন্ধ ছিল মাঠের বাইরের ধোয়ার কারণে।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top