এখনো সরানো হয়নি যত্রতত্র বাস কাউন্টার

030907-pic.jpg

মুহিববুল্লাহ মুহিব॥
যানজট নিরসনে কক্সবাজার শহরের কলাতলী থেকে লালদীঘিরপাড়া পর্যন্ত গড়ে উঠা যত্রতত্র বাস কাউন্টার বন্ধের নির্দেশ দিয়েছিল কক্সবাজার উন্নয়ন কতৃপক্ষ (কউক)। নির্দেশনার তিনদিনের মধ্যে এসব বাস কাউন্টার সরিয়ে ফেলার কথা ছিল। কিন্তু তিনদিন অতিবাহিত হলেও এখনো সরিয়ে নেয়া হয়নি যত্রতত্র বাস কাউন্টার।

পর্যটকদের সুবিধার্তে ও চলমান যানজট নিরসনের লক্ষ্যে এমন উদ্যোগ নিয়েছিল কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ। কক্সবাজারের সব বাস মালিক প্রতিনিধিদের চিঠি দিয়ে তিনদিনের সময় বেধে দেয়া হয়েছিল। কিন্তু এ সময় অতিবাহিত হলেও এখনো সরানো হয়নি যত্রতত্র বাস কাউন্টার। এতে কউকের কার্যক্রম নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন জেলার সচেতন মহল।

এদিকে কলাতলী থেকে হলিডে মোড় পর্যন্ত এলাকায় যত্রতত্র কাউন্টারের কারণে তীব্র যানজট সৃষ্টি হয়ে থাকে। এরপর চরম দুর্ভোগ পোহাতে পর্যটকদের। এ সমস্যা নিরসনে এমন উদ্যোগ আলোরমুখ দেখেনী।

কউকের একটি নির্ভরযোগ্য সুত্র জানিয়েছে, এসআলম ছাড়া বাকি সব বাসের কলাতলী থেকে হলিডে মোড় পর্যন্ত এক একটি বাসের ১০-১২টি কাউন্টার রয়েছে। অনেক বাস কাউন্টার পানের দোকসহ যত্রতত্রভাবে বসানো হয়েছে।

এদিকে জানতে চাইলে ‘কক্সবাজার আন্দোলনের চেয়ারম্যান আব্দুল আলীম নোবেল বলেন, পর্যটন শহর কক্সবাজার যানজট নিরসনে এসব বাস কাউন্টার সরিয়ে নেয়া খুবই প্রয়োজন। কারণ যত্রতত্র কাউন্টার থাকায় যেখানে-সেখানে বাস দাড়িয়ে যাচ্ছে। এরপর সৃষ্টি হচ্ছে তীব্র যানজট। এতে চরম দুর্ভোগে পড়তে হয় দেশী-বিদেশী পর্যটকদের। তবে কউকের এমন সিদ্ধান্তে আমরা খুবই খুশি হয়েছিলাম। কিন্তু কউকের দেয়া সিদ্ধান্তকে বৃদ্ধাঙ্গুলী দেখিয়ে যত্রতত্র বাস কাউন্টার এখনো সরিয়ে নেয়া হয়নি। এটা খুবই দু:খজনক আমাদের জন্য।

বিষয়টি সম্পর্কে জানতে চাইলে কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান লে. কর্ণেল (অব:) ফোরকান আহমদ এ প্রতিবেদককে জানান, কাউন্টার না সরালেও কোন বাস দাড়াতে পারবে না এমন নির্দেশা তাদের দেওয়া হয়েছে। কোন বাস যদি যত্রতত্রভাবে দাড়ায তাদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করবে কউক।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top