মুমিনুলের জন্য বিশেষ পরিকল্পনা

Muminul_home.jpg

কক্সবাজার ডেস্ক :

চট্টগ্রামে দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্ট এক অর্থে ছিল ব্যাটসম্যানদের। তবে সেখানেও চতুর্থ দিন বিকেলে কিছুটা চাপে পড়ে গিয়েছিল স্বাগতিকরা। যদিও ব্যাটিং দৃঢ়তায় টেস্ট ড্র করেছে বাংলাদেশ। দল হিসেবে নিজেদের সামর্থ্যের কতদূর যেতে পারে টাইগাররা তার অপরাজেয় প্রদর্শনী দেখেছে সফরকারীরা। ব্যাটিং দৃঢ়তার পাশাপাশি ক্লান্তিহীন বোলিংয়ের ধারাবাহিক ধৈর্যে ফলশূন্য চট্টগ্রাম টেস্টকেও দারুণ অর্থবহ করতে পেরেছে টাইগাররা। দেখিয়েছে, এ সংস্করণে নিজেদের লড়াইয়ের সামর্থ্য।

অন্যদিকে চট্টগ্রাম টেস্টের স্মৃতিকে যেন ভুলতে পারলেই বাঁচে হাথুরুসিংহের শিষ্যরা। বৃহস্পতিবার মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে শুরু হচ্ছে দুই দলের দ্বিতীয় টেস্ট। তার আগে বুধবার সংবাদ সম্মেলনে মিরপুরে নতুনভাবে নতুন পরিকল্পনা নিয়ে মাঠে নামার কথা জানালেন লঙ্কান অধিনায়ক দিনেশ চান্দিমাল। বিশেষ করে বাংলাদেশের ব্র্যাডম্যানখ্যাত মুমিনুল হককে নিয়ে বিশেষ পরিকল্পনা করছেন তারা।

চট্টগ্রাম টেস্টে শ্রীলঙ্কাকে হতাশায় পুড়িয়েছেন আসলে মুমিনুলই। বাংলাদেশের ইতিহাসের প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে এক টেস্টের দুই ইনিংসেই সেঞ্চুরি করেছেন তিনি। বিশেষ করে মুমিনুলের দ্বিতীয় ইনিংসের সেঞ্চুরিতেই লঙ্কানদের জয়ের আশা শেষ হয়ে যায়। তাই মুমিনুলের বিষয়ে এবার সতর্ক চান্দিমাল বলেছেন, ‘সে (মুমিনুল) চট্টগ্রামে অসাধারণ খেলেছে। টেস্ট ক্রিকেটে সে খুবই ভালো খেলে। তার মানসিক শক্তি দারুণ। দুই ইনিংসেই সেঞ্চুরি করাটা খুব সহজ বিষয় না। এটা সবসময়ই স্পেশাল। এ ম্যাচে তার জন্য আমাদের বিশেষ পরিকল্পনা আছে। আমি আশা করছি, বোলারা ম্যাচে তা বাস্তবায়ন করতে পারবে।’

মিরপুর টেস্টের আগের দিন সংবাদ সম্মেলনে চট্টগ্রাম টেস্টের প্রসঙ্গে ২৮ বছর বয়সী এ উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান বলেছেন, ‘প্রথম কথা, ব্যাটসম্যানদের জন্য পিচটি সত্যি খুব ভালো ছিল। কিন্তু বোলারদের জন্য ভয়ঙ্কর দুঃস্বপ্নের। চট্টগ্রাম টেস্ট থেকে আমাদের পজেটিভ কিছু বের করে আনতে হবে। বাংলাদেশ ৫০০ (প্রথম ইনিংসে) করার পর আমরা ৭’শর বেশি রান করেছি; এটা কোনো কন্ডিশনেই সহজ নয়। একটা বড় স্কোর করতে পারাটা সবসময়ই দারুণ। এটা আমাদের জন্য প্লাস পয়েন্ট।’

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top