আজ ইতালি ও ভ্যাটিকান সিটি যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

download-3-4.jpg

কক্সবাজার ডেস্ক :

আন্তর্জাতিক কৃষি উন্নয়ন তহবিলের (আইএফএডি) ৪১তম গভর্নিং কাউন্সিলে যোগ দিতে ইতালির রোম যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পোপ ফ্রান্সিসের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে রোম থেকে তিনি ভ্যাটিক্যান সিটি সফরেও যাবেন।
আজ রোববার (১১ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৯টা ৫৫মিনিটে এমিরেটস এয়ারলাইন্সের ইকে-৫৮৩ ফ্লাইটে রোমের উদ্দেশে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ছাড়বেন প্রধানমন্ত্রী।
আন্তর্জাতিক কৃষি উন্নয়ন তহবিলের প্রেসিডেন্ট গিলবার্ট এফ হিউংবোর আমন্ত্রণে সংস্থাটির গভর্নিং কাউন্সিলে যোগ দিতে যাচ্ছেন শেখ হাসিনা। কাউন্সিল সভার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী।
প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী হিসেবে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত, কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীসহ সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা রয়েছেন।
রোববার সকালে ঢাকা ছাড়ার পর দুবাইয়ে যাত্রা বিরতি দিয়ে ইকে-০৯৫ ফ্লাইটে স্থানীয় সময় সন্ধ্যা পৌনে ৭টার দিকে রোমের ফুইমিসিনো আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছাবেন প্রধানমন্ত্রী ও তার সফরসঙ্গীরা।
বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানাবেন ইতালিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আবদুস সোবহান শিকদার, ইতালি সরকারের প্রতিনিধি, আইএফএডির সিনিয়র কর্মকর্তারা।
বিমানবন্দর থেকে প্রধানমন্ত্রী সফরকালীন আবাসস্থল পার্ক দেই প্রিন্সিপি গ্র্যান্ড হোটেলে এ যাবেন।
সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) সকালে প্রধানমন্ত্রী সরকারি সফরে ভ্যাটিক্যান সিটিতে যাবেন। সেখানে পোপ ফ্রান্সিসের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন। রাতে তিনি সফরকালীন আবাসস্থলে বাংলাদেশ দূতাবাস আয়োজিত নৈশভোজে যোগ দেবেন।
মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) সকালে আইএফএডির সদর দফতরে যাবেন। সেখানে আইএফএডি গভর্নিং কাউন্সিলের ৪১তম সভায় যোগ দেবেন। রাতে তিনি হোটেলে বাংলাদেশি কমিউনিটি আয়োজিত সভায় যোগ দেবেন।
বুধবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) প্রধানমন্ত্রী দেশের উদ্দেশে ইতালি ছাড়বেন। বৃহস্পতিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) সকাল আটটায় তার ঢাকায় পৌঁছানোর কথা।
১৯৭৪ সালে বিশ্ব খাদ্য সম্মেলনে গৃহীত সিদ্ধান্তের ধারাবাহিকতায় ১৯৭৭ সালে জাতিসংঘের একটি বিশেষায়িত আর্থিক সংস্থা হিসেবে আইএফএডি প্রতিষ্ঠিত হয়। সংস্থাটি মূলত কৃষিক্ষেত্রে উন্নয়নের মাধ্যমে দারিদ্র্য বিমোচন বিশেষত উন্নয়নশীল দেশগুলোতে গ্রামীণ ও প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর সামগ্রিক জীবনমান উন্নয়নে কাজ করে।
‘স্বল্প স্থায়ী থেকে দীর্ঘমেয়াদী স্থিতিস্থাপকতা ঃ টেকসই গ্রামীণ অর্থনীতিতে বিনিয়োগ’ প্রতিপাদ্য নিয়ে এবারের আইএফএডির গভর্নিং কাউন্সিল।
এই আলোকে আইএফএডি–এর সদস্য দেশসমূহ কৃষিক্ষেত্রে বিশেষ করে ক্ষুদ্র ও মাঝারী কৃষকদের জীবনমান উন্নয়নে বিদ্যমান চ্যালেঞ্জসমূহ মোকাবেলায় নতুন এবং উদ্ভাবনী সমাধানের উপায় বের করতে অভিজ্ঞতা বিনিময় ও আলোচনা করবে।
এছাড়া এই সভায় পল্লী যুব উন্নয়ন এবং নারীর অধিকতর ক্ষমতায়নের লক্ষ্যে বিনিয়োগ এবং অংশীদারিত্বমূলক সহযোগিতার ওপর বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top