সিএনজি শ্রমিকের কোটি টাকা আত্মসাত, ভূয়া ধর্মঘটের বিরুদ্ধে পেকুয়ায় পরিবহন মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদের প্রতিবাদ সভা

pic-pekua-cng.jpg

বার্তা পরিবেশক :

বরইতলি-মগনামা সিএনজি,অটোরিক্সা, টেম্পো শ্রমিক ইউনিয়নের নামে মো: নাসির- মো: বারেকের নেতৃত্বাধীন অবৈধ কমিটি সাধারণ শ্রমিকের কোটি কোটি টাকা আত্মসাত, পুলিশ টোকেনের নামে লাখ লাখ টাকা উত্তোলন করে আত্মসাত, বিএনপি-জামায়াতের এজেন্টা বাস্তবায়ন ও খালেদা জিয়ার সাজাকে কেন্দ্র করে অবৈধ কমিটির নামে ১৪ ফেব্রুয়ারী চকরিয়া- পেকুয়ায় পরিবহন ধর্মঘটের ডাক ও অরাজকতা সৃষ্টির পায়তারা বিরুদ্ধে পেকুয়ায় পরিবহন মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদের প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারী) বিকালে পেকুয়া চৌমহুনীস্থ ঐক্য পরিষদের কার্যালয়ে প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
কক্সবাজার ট্রাক, মিনিট্রাক, পিকআপ শ্রমিক ইউনিয়ন (১০৮৫) পেকুয়া শাখার সভাপতি ও ঐক্য পরিষদের সহ-সভাপতি মো: ফোরকানের সভাপতিত্বে বরইতলি-মগনামা সিএনজি, অটোরিক্সা, টেম্পো শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক নুরুল আজিমের পরিচালনায় উক্ত সভায় বক্তব্য রাখেন, জাতীয় শ্রমিকলীগ পেকুয়া উপজেলা শাখার আহ্বায়ক ঐক্য পরিষদ নেতা নুরুল আবছার, বরইতলি-মগনামা সিএনজি, অটোরিক্সা, টেম্পো শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি এস.এম শাহাদত হোসেন, কক্সবাজার ট্রাক, মিনিট্রাক, পিকআপ শ্রমিক ইউনিয়ন(১০৮৫) পেকুয়া শাখার সাধারণ সম্পাদক ঐক্য পরিষদ নেতা আলী আহমদ, বরইতলি-মগনামা সিএনজি, অটোরিক্সা, টেম্পো শ্রমিক ইউনিয়নের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি বর্তমান কার্যকরী কমিটির সভাপতি মো: জসিম উদ্দিন, ঐক্য পরিষদ নেতা মো: আজমগীর, নাজিম উদ্দিন, মো: রফিক, বেলাল উদ্দিন, মো: এমরান, আবদুল মালেখ, নাজিম উদ্দিন, মো: আজিজ, শাহাদত হোসেন, মো: শওকত, মো: ভুট্টু। এ সময় শ্রমিক নেতা ফরিদুল আলম, মো: আরিফ, জয়নাল আবেদীন, দেলোয়ার হোসেন, মণির উদ্দিন, সাজ্জাদ, সামশুল আলমসহ সিএনজি শ্রমিকেরা উপস্থিত ছিলেন।
শ্রমিক নেতারা বলেন, সংগঠনের কোটি কোটি টাকা আত্মসাত করেছে মো: নাসির-মো: বারেক কমিটি। এছাড়াও নির্বাচন না দেওয়ায় সাধারণ শ্রমিকেরা দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন করে আসছিল। এরই ধারাবাহিকতায় জেলা কমিটি বরইতলি- পেকুয়ার সংগঠন পরিচালনা করার জন্য শাহাদত হোসেন ও নুরুল আজিমকে বৈধ কমিটি দেওয়া হয়। এ কমিটি নির্বাচন সম্পূর্ন করার পরিবেশ সৃষ্টি ও আত্মসাতকৃত টাকা উদ্ধারের জন্য এ কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। সংগঠনের নামধারণ করে খালেদা জিয়ার সাজাকে কেন্দ্র করে ধর্মঘটের নামে অরাজকতা সৃষ্টি করতে দেওয়া হবেনা। তারপরও যদি চেষ্টা করা হয় তাহলে সাধারণ শ্রমিকদের নিয়ে দাঁতভাঙ্গা জবাব দেওয়া হবে।
এছাড়াও সিএনজি সংগঠনের বিষয় নিয়ে বিগত ২দিন ধরে বিভিন্ন পত্রিকায় পেকুয়া সাধারণ জনগণের জনপ্রিয় নেতা জেলা পরিষদ সদস্য উপজেলা যুবলীগ সভাপতি জাহাঙ্গীর আলমকে জড়িয়ে মিথ্যা ও কূরুচিপূর্ন বক্তব্য উত্তাপন করে বিএনপি-জামায়াতের এজেন্টা বাস্তবায়নের চেষ্টা করছে নাসির-বারেকের অবৈধ কমিটি। যা সভ্য সমাজকে নাড়িয়ে দিয়েছে। অথচ তিনি এ বিষয়ে কোন ধরণের জড়িত নাই। আমরা জাহাঙ্গীর আলমের বিরুদ্ধে মনগড়া বক্তব্য প্রত্যহার ও এ বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি। ভবিষ্যতে তার নামকে অশ্লীলভাবে ও মনগড়াভাবে তাকে জড়ালে আমরা আইনের আশ্রয় নিতে বাধ্য হব।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top