স্বাধীনতা যুদ্ধে বেতারের ভূমিকা ছিল গৌরবোজ্জল- মুজিব চেয়ারম্যান

1-4.jpg

প্রেস বিজ্ঞপ্তি :
জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান চেয়ারম্যান বলেছেন, অনেকেই ধারনা ইন্টারনেটের অগ্রযাত্রার এই সময়ে রেডিও তার গুরুত্ব হারিয়েছে ধারনাটি সঠিক নয় মোটেই। কারণ সময় যেমন বদলেছে ঠিক তেমনই সময়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে প্রচারনার ধরনও বদলে গেছে। এখনও মানুষ রেডিও শোনে। এখনোও রেডিও ওপর নির্ভর আছে মানুষ।
তথ্য প্রযুক্তির অবাধ প্রসারের ফলে সম্প্রচার জগতে ব্যাপক পরিবর্তন এসেছে। প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার প্রতিযোগিতাও পাল্লা দিয়ে। গ্রাম-গঞ্জে ও তার দূর্গম এলাকায় এখনো বেতার তথ্য আদান-প্রদানে গুরুত্বপূর্ণ গণমাধ্যম।
তিনি আরো বলেন, দুর্যোগে বেতারের বিরামহীন সম্প্রচার মানুষকে সঠিক দিক-নির্দেশনা দেয়। মহান স্বাধীনতাযুদ্ধেও বেতারের ছিল গৌরবোজ্জল ভূমিকা। ১৩ ফেব্রুয়ারি দুপুরে বিশ্ব বেতার দিবস উপলক্ষ্যে বাংলাদেশ বেতার কক্সবাজার কেন্দ্রের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য এসব বলেন।
বেতারের আঞ্চলিক পরিচালক মাহাফুজুল হকের সভাপতিত্বে সংবাদ পাঠিকা শামিম আকতারের পরিচালায় অনুষ্ঠিত আয়োজনে
প্রধান অতিথি আরো বলেন, সরকারের উন্নয়নমূলক কর্মকা- সাধারণ মানুষের দোড় গোড়ায় পৌঁছে দিতে এবং উন্নয়নমূলক কর্মকা-ে অংশগ্রহণে মানুষকে উদ্বুদ্ধও উৎসাহিত করতে বেতার শক্তিশালী হাতিয়ার। ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে বর্তমান সরকারের নেয়া বিভিন্ন পদক্ষেপ ও নতুন প্রযুক্তি বেতারকে আরও সম্ভাবনায় করে তুলেছে।
তিনি বলেন, ১৯৭১ সালে কালজয়ী ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষন প্রচার বেতারের এত উজ্জল অধ্যায়। এ ভাষন প্রচারের পর সর্বস্থরের মানুষ তার নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়ে। স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্র গান থেকে প্রচারিত কালজয়ী গান ও অনুষ্ঠান গুলো একদিকে মুক্তিযুদ্ধের মনোবলকে শক্তিশালী করেছে অন্যদিকে দেশের জনগনকে স্বাধীনতার দিকে অনুপ্রাণিত করেছে।
এসময় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন নজরুল ইসলাম বকসী, বসিরুল ইসলাম, অধ্যাপক রায়হান উদ্দিন।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top