জেলা যুবলীগের নবনির্বাচিত সভাপতি-সম্পাদককে টেকনাফ উপজেলা যুবলীগের সংবর্ধনা

jubolig-nrws.doc-e1523890093473.jpg

বার্তা পরিবেশক :
বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, টেকনাফ উপজেলা শাখার উদ্যোগে জেলা যুবলীগের ত্রি- বার্ষিক সম্মেলন ও কাউন্সিলে নব-নির্বাচিত সভাপতি সোহেল আহমদ বাহাদুর ও সাঃ সম্পাদক শহিদুল হক সোহেল’র গণ সংবর্ধনা অনুষ্ঠান গতকাল রবিবার (১৫ এপ্রিল) বিকাল ৩ ঘটিকার সময় স্থানীয় হোটেল দ্বীপ প্লাজার সামনে অনুষ্ঠিত হয়। টেকনাফ উপজেলা যুবলীগের সভাপতি নুরুল আলম চেয়ারম্যানের সভাপতিত্বে ও সাঃ সম্পাদক নুর হোসেন চেয়ারম্যানের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে টেকনাফ উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাবেক সাংসদ অধ্যাপক মোহাম্মদ আলী বলেন- শেখ হাসিনা জনগণের ভোটের অধিকার, ভাতের অধিকার ও কথা বলার অধিকার প্রতিষ্ঠা করেছেন। বিএনপির আমলে দেশে মঙ্গা ছিল আর শেখ হাসিনার আমলে দেশ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। এখন আর চাল আমদানি করতে হয় না, বর্তমানে বিদেশে খাদ্য রপ্তানী করছে শেখ হাসিনার আওয়ামীলীগ সরকার।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে জেলা যুবলীগের সদ্য বিদায়ী সাঃ সম্পাদক ও কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র (ভারপ্রাপ্ত) মোঃ মাহাবুবুর রহমান চৌধুরী বলেন- রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ যেখানে উন্নয়নের চালিকা শক্তিতে রয়েছে, সেখানে বিএনপি-জামায়াত দেশে সন্ত্রাস নৈরাজ্য সৃষ্টি করে ক্ষমতা দখলের অপচেষ্টা চালাচ্ছে। তিনি বিএনপি-জামায়াতের অরাজকতার পরিকল্পনা প্রতিহত করার জন্য যুব সম্প্রদায়কে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান।
সংবর্ধিত অতিথির বক্তব্যে জেলা যুবলীগের নব-নির্বাচিত সভাপতি সোহেল আহমদ বাহাদুর বর্তমান সরকার গৃহীত শিক্ষা, স্বাস্থ্য, যোগাযোগ ও বিদ্যুতায়নের কথা উল্লেখ করে বলেন- এই উন্নয়ন কর্মকান্ড ব্যাহত করার জন্য একটি স্বাধীনতার বিপক্ষ শক্তি দেশে-বিদেশে ষড়যন্ত্র চালাচ্ছে। দেশ বিরোধী সকল ষড়যন্ত্র প্রতিহত করতে তিনি যুবলীগের নেতা কর্মীদের ঐক্যবদ্ধ ও সুসংগঠিত হওয়ার আহবান জানান।
জেলা যুবলীগের সম্মেলনে সভাপতি নির্বাচিত হওয়ার পিছনে টেকনাফ উপজেলা যুবলীগের সমর্থন ও অবদানের প্রসঙ্গ টেনে তিনি আরও বলেন- জেলা যুবলীগের সম্মেলনে সভাপতি নির্বাচিত করে আমাকে যে সম্মানটুকু দিয়েছেন, সে সম্মানের যথার্থ মূল্যায়ন সুসংগঠিত টেকনাফ উপজেলা যুবলীগের নেতা কর্মীদের আমি করে যাব।
সংবর্ধিত অতিথির বক্তব্যে জেলা যুবলীগের সাঃ সম্পাদক শহিদুল হক সোহেল বলেন- সংগঠনে হাইব্রীড ও সুবিধালীগ যাতে প্রবেশ করতে না পারে সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।
তিনি আগামী জাতীয় নির্বাচনকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে উল্লেখ করে বলেন- এই আসনে গণতন্ত্রের মানসকন্যা শেখ হাসিনা যাকে নমিনেশন দিয়ে নেীকা প্রতীক দেবেন, সকল ভেদাভেদ ভুলে যুবলীগের নেতা কর্মীকে নৌকা প্রতীককে জয়ী করতে মাঠে-ময়দানে কাজ করতে হবে। সম্মেলনে সমর্থন ও সংবর্ধনার প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন- টেকনাফ উপজেলা যুবলীগের এই ঋন কখনো শোধ করতে পারব না। সুখে-দুঃখে আপনাদের পাশে থেকে এবং আপনাদের সঙ্গে নিয়ে এগিয়ে যেতে চাই।
বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- টেকনাফ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাঃ সম্পাদক আলহাজ্ব নুরুল বশর,জেলা যুবলীগের সাবেক সহ-সভাপতি আবুল কালাম,সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক জাফর আলম,সাবেক তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক নজীর আহমদ সীমান্ত,সাবেক সদস্য বেন্টু দাশ।
এ সময় আরও বক্তব্য রাখেন- টেকনাফ উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি জিয়াউর রহমান জিয়া,যুগ্ন সাঃ সম্পাদক ফজলুল কবির,পৌর যুবলীগের আহবায়ক তোয়াক্কুল হোসেন চৌধুরী প্রমুখ।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন- জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য সোনা আলী,বদরুল হাসান মিল্কী,জেলা যুবলীগের সাবেক সাংস্কৃতিক সম্পাদক হুমায়ুন কবির হিমু,সাবেক দপ্তর সম্পাদক ও রামু উপজেলা যুবলীগের সাঃ সম্পাদক নীতিশ বড়ুয়া, সাবেক সদস্য স্বরূপণ পাল পাঞ্জু,শহর যুবলীগের যুগ্ন আহবায়ক যথাক্রমে ডালিম বড়ুয়া,আসাদ উল্লাহ,শাহেদ মোহাম্মদ এমরান,কক্সবাজার সদর উপজেলা যুবলীগের সাঃ সম্পাদক রাজিবুল হক চৌধুরী রিকু,উখিয়া উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মুজিবুল হক আজাদ,সাঃ সম্পাদক ইমাম হোসেন প্রমুখ।
এর আগে সংবর্ধিত অতিথিদের ফুল দিয়ে বরণ ও সম্মাননা স্মারক প্রদান করেন টেকনাফ উপজেলা যুবলীগের সভাপতি নুরুল আলম চেয়ারম্যান ও সাঃ সম্পাদক নুর হোসেন চেয়ারম্যান। গণ সংবর্ধনা সভার শুরুতে মহাগ্রন্থ আল কোরআন থেকে তিলাওয়াত করেন টেকনাফ উপজেলা যুবলীগের সহ-সম্পাদক সৈয়দ হোসেন।

Top