জন্মনিয়ন্ত্রণে পুরুষের জন্য নতুন নিরাপদ পিল

download-1-2.jpg

কক্সবাজার ডেস্ক :

জন্মনিয়ন্ত্রণের জন্য পুরুষরা নিয়মিত খেতে পারবেন এমন একটি নিরাপদ পিল আবিষ্কারের দাবি করেছেন গবেষকরা। দিনে একটি করে খাওয়ার এ পিল পরীক্ষায় নিরাপদ প্রমাণিত হয়েছে এবং এর কোনো ক্ষতিকর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াও দেখা যায়নি।
যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগোতে এন্ডোক্রাইন সোসাইটির বার্ষিক সম্মেলনে গবেষণার এ তথ্য প্রকাশ করে ‘ইউনিভার্সিটি অব ওয়াশিংটনের’ গবেষকরা বলেছেন, পিলটির নাম ডাইমিথেন্ড্রোলোন আনডেকানোয়েট বা (ডিএমএইউ)। এটি নিরাপদে একমাস ধরে দৈনিক খাওয়া যাবে। পিলটি নারীদের জন্মনিয়ন্ত্রণ পিলের মতোই। এ ওষুধ শুক্রাণু উৎপাদনের জন্য প্রয়োজনীয় হরমোন কমিয়ে দিয়ে কার্যকরভাবে জন্মনিয়ন্ত্রণ করতে সক্ষম। গবেষক দলের প্রধান অধ্যাপক স্টেফানি পেজ বলেন, “জন্মনিয়ন্ত্রণের উপায় হিসেবে ইনজেকশন বা জেলের তুলনায় বেশির ভাগ পুরুষই দৈনিক একটি করে পিল খাওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেছে।”
পুরুষের জন্য জন্মনিয়ন্ত্রণ পিলের গবেষণা অনেক দিন ধরে হয়ে আসলেও তা বরাবরই বাধার সম্মুখীন হয়েছে। দেখা গেছে, এ ধরনের কিছু পিল যকৃতে প্রদাহ সৃষ্টি করে। আবার কিছু পিলের কার্যকারিতা তাড়াতাড়ি শেষ হয়ে যায়, ফলে দিনে দুইবার করে তা সেবনের প্রয়োজন পড়ে। কিন্তু নতুন গবেষণায় পাওয়া ডিএমএইউ সেবনে এসব সমস্যা হবে না। এ গবেষণায় ১৮ থেকে ৫০ বছর বয়সের ১০০ জন সাস্থ্যবান পুরুষ অংশ নিয়েছে, তবে এর মধ্যে গবেষণা শেষ করেছে ৮৩ জন।
ডিএমএইউ এর তিনটি ডোজ ১০০, ২০০ ও ৪০০ মিলিগ্রাম দিয়ে তাদেরকে পরীক্ষা করা হয় শেষে তাদের রক্তও পরীক্ষা করা হয়। দেখা যায়, উচ্চমাত্রার অথাৎ, ৪০০ মিলিগ্রাম ডিএমএইউ যারা সেবন করেছেন, তাদের দেহে টেস্টোস্টেরন এবং শুক্রাণু উৎপাদনের আরও দুইটি হরমোন উল্লেখযোগ্য মাত্রায় কমে গেছে। আর পিলটি সেবনের পর সবারই অল্প মাত্রায় ওজন এবং উপকারী কোলেস্টেরল এইচডিএল বাড়তে দেখা গেলেও এর কোনো নেতিবাচক পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা যায়নি। পুরুষের কার্যকরী জন্মনিয়ন্ত্রণ পিলের ক্ষেত্রে গবেষণার এ ফলকে ‘নজিরবিহীন’ আখ্যা দিয়েছেন প্রধান গবেষক স্টেফানি পেজ।

Top