৩০ মিনিট আগেই পরীক্ষা কেন্দ্রে উপস্থিত হতে হবে

images-4.jpg

কক্সবাজার রিপোর্ট :
কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন বলেছেন, সরকার নকল প্রতিরোধে বদ্ধপরিকর। ২ এপ্রিল থেকে শুরু হওয়া এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় নতুন নির্দেশনা অনুযায়ী পরীক্ষা শুরুর ৩০ মিনিট আগে পরীক্ষার্থীদেরকে কক্ষে প্রবেশ করতে হবে। ৩০ মিনিট পরে কোন পরীক্ষার্থীকে কোন কেন্দ্রে পরীক্ষা দেওয়া সুযোগ দিলে ঐ কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থার পরে বিভাগীয় মামলাও করা হবে। পরীক্ষা নকল প্রতিরোধে নির্দেশনা অনুযায়ী কেন্দ্র সচিব ছাড়া কেউ মোবাইল বা কোন ডিভাইস নিয়ে প্রবেশ করতে পারবে না। শুধু মাত্র কেন্দ্র সচিব সাধারন মোবাইল ব্যবহার করতে পারবে। প্রশ্ন ফাঁসরোধে পরীক্ষার প্রশ্নপত্র গ্রহণের জন্য নির্দেশনা অনুযায়ী অবশ্যই কেন্দ্র সচিবকে উপস্থিত হয়ে প্রশ্ন গ্রহণ করতে হবে। কোন প্রতিনিধির মাধ্যমে ট্রেজারী থেকে কোন মতেই প্রশ্ন গ্রহণ করা যাবে না।
মোবাইল ব্যবহার নিষিদ্ধের বিষয়ে স্ব স্ব নির্বাহী কর্মকর্তাগণ মাইকিংয়ের মাধ্যমে সচেতনা সৃষ্টিতে কাজ করার নির্দেশানা দেওয়া হয়েছে। গতকাল জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে ২০১৮ সালের অনুষ্ঠিতব্য এইচএসসি, আলিম, সমমানের পরীক্ষার প্রস্তুতি সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, আজ থেকে পরীক্ষা কেন্দ্রের আশপাশের সমস্ত কোচিং সেন্টার সমূহ বন্ধের জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাগণ ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। কোন কোচিং সেন্টার কিংবা পরীক্ষা কেন্দ্রের অভ্যন্তরে ফটোকপি মেশিন বন্ধ রাখার নির্দেশা দেওয়া হয়।
অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মো. মাহিদুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রস্তুতি সভায় উপস্থিত ছিলেন, জেলা গোয়েন্দা পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার মো. শহিদুল ইসলাম, ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডাঃ মহিউদ্দিন মোহাম্মদ আলমগীর, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. নোমান হোসেন প্রিন্স, জেলা শিক্ষা অফিসার মো. সালেহ উদ্দিন চৌধুরী, সদর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. সেলিম উদ্দিন, কক্সবাজার সিটি কলেজের অধ্যক্ষ ক্যাথিং অং, উখিয়া বঙ্গমাতা মহিলা কলেজের উপাধ্যক্ষন মো. শাহ আলম, রামু কলেজের সহযোগী অধ্যাপক আবু তাহেরসহ জেলার সকল কলেজ ও সমমানের মাদ্রাসার অধ্যক্ষের প্রতিনিধি ও কেন্দ্র সচিবগণ।
উল্লেখ্য, জেলার সকল কেন্দ্র ও পরীক্ষার্থীর সংখ্যা কলেজের পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসকের শিক্ষা ও কল্যাণ শাখায় অদ্যাবধি জমা না দেওয়ায় এর পরিসংখ্যান জানাতে পারেনি সংশ্লিষ্ট্য কর্তপক্ষ। জেলা প্রশাসক সুষ্ঠু, নকলমুক্ত সু-শৃঙ্খলভাবে পরীক্ষা গ্রহণের জন্য সকলের সহযোগীতা কামনা করে। আগামী ২ এপ্রিল থেকে দেশব্যাপী এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

Top