আরও ১৬০ উপজেলায় আইসিটি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র হচ্ছে : শিক্ষামন্ত্রী

cox-1.jpg

কক্সবাজার রিপোর্ট :

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, বর্তমানে সারাদেশে ১২৬টি উপজেলায় আইসিটি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র রয়েছে। তথ্য প্রযুক্তির জ্ঞান ছড়িয়ে দিতে সরকার নতুন করে শিক্ষা তথ্য ও পরিসংখ্যান ব্যুরো (বেনবেইস) এর আওতায় আরও ১৬০ টি উপজেলায় আইসিটি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র বাস্তবায়ন করছে। যার মধ্যে কক্সবাজারেও দুটি উপজেলায় শীঘ্রই উক্ত কেন্দ্র বাস্তবায়ন হবে।
গতকাল শনিবার রাত ৯টায় কক্সবাজার বিয়াম ফাউন্ডেশন মিলনায়তনে বাংলাদেশ শিক্ষা তথ্য ও পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বেনবেইস) সহকারি প্রোগ্রামারদের দুই মাস ব্যাপী বুনিয়াদি প্রশিক্ষণের সমাপনী অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এই প্রশিক্ষণে অংশ নিয়েছেন ৪২ জন সহকারি প্রোগ্রামার। নন ক্যাডারভুক্ত এই কর্মকর্তারাই উপজেলা পর্যায়ে বেনবেইস এর সহকারি প্রোগ্রামার হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন।
শিক্ষমন্ত্রী বলেন, কারিগরি শিক্ষার দিনদিন প্রসার ঘটছে। বর্তমানে ১৩ শতাংশ শিক্ষার্থী কারিগরি শিক্ষার অর্ন্তভুক্ত রয়েছে। ২০২০ সালের মধ্যে তা ২০ শতাংশে উন্নীত করতে লক্ষ্য হাতে নেওয়া হয়েছে। আর এই সময়ের মধ্যেই সরকার ৫ লাখ ৭২ হাজার ৮২৪ জন শিক্ষককে আইসিটি বিষয়ে প্রশিক্ষণ দিয়ে দক্ষ শিক্ষক হিসেবে গড়ে তুলতে চায়।
শিক্ষাক্ষেত্রে ছাত্রী শিক্ষার্থীর হার বৃদ্ধির বিষয়ে মন্ত্রী একটি পরিসংখ্যান উল্লেখ করে বলেন, বর্তমানে প্রাথমিকে ৫১ শতাংশ, মাধ্যমিকে ৫৩ শতাংশ, উচ্চ মাধ্যমিকে ৪৩ শতাংশ ছাত্রী শিক্ষার্থীর অংশগ্রহণ রয়েছে। যা নারী শিক্ষার জন্য বিশাল একটি মাইলফলক।
তিনি আরও বলেন, শিক্ষাক্ষেত্রে ঝরে পড়া রোধ করতে সরকার এক কোটি ৩০ লাখ শিক্ষার্থীর মায়ের হাতে মোবাইলে উপবৃত্তির টাকা পৌছে দেওয়ার জন্য বিনামূল্যে সীম প্রদান করেছেন। যার সুফল পাচ্ছে শিক্ষার্থীরা।
আইসিটি শিক্ষার গুরুত্বারোপ করে নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, আইসিটি শিক্ষা ফরজ হয়ে দাঁড়িয়েছে। দক্ষ জনশক্তি গড়ে তুলতে হলে আইসিটি শিক্ষার বিকল্প নেই।
মন্ত্রী বলেন, শিক্ষামন্ত্রণালয় হচ্ছে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় পরিবার। যেখানে ৫ কোটি শিক্ষার্থী, ২০ লাখ শিক্ষক এবং ৫ লাখ অন্যান্য কর্মকর্তা-কর্মচারি রয়েছে। যারা দেশকে শিক্ষায় এগিয়ে নিতে নিরলস প্রচেষ্টা করছে।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিয়াম ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক শেখ মুজিবুর রহমান। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বেনবেইস এর পরিচালক মো. ফসিউল্লাহ, রোহিঙ্গা শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাসন কমিশনার আবুল কালাম আজাদ, জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন কক্সবাজার আঞ্চলিক বিয়াম ফাউন্ডেশনের পরিচালক মো. মোজাম্মেল হক।
উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ একেএম ফজুলল করিম চৌধুরী, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা) আশরাফ হোসেন, গণপূর্তের নির্বাহী প্রকৌশলী রুহুল আমিন মিয়া, জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা সালেহ উদ্দিন আহমেদ, কক্সবাজার মডেল হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. রমজান আলী প্রমুখ।

Top