কচ্ছপিয়ার ঘরে ঘরে বিদ্যুতের আলো পৌঁছে দিচ্ছেন-এমপি কমল

news-ka-mp-15-05-182.doc.jpg

মাঈনুদ্দিন খালেদ :
দেশরতœ শেখ হাসিনার ১০টি অগ্রাধিকার প্রকল্পের একটি ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ। এখন এ প্রক্রিয়া কচ্ছপিয়ার ঘরে এসে পৌঁছেছে। অবহেলিত এ ইউনিয়নে অন্ধকারের বিপরীতে আলো দেখতে পাচ্ছে কচ্ছপিয়ার মানুষ। এ সবের জন্যে তিনি নিজে কাজ করছেন নিরলসভাবে। পাশাপাশি সৎ যোগ্য কচ্ছপিয়ার ইউপি চেয়ারম্যান নোমান সাহেব তার পাশে থেকেই এ কাজের সহায়তা করে আসছেন। নোমানের আবেদন নিবেদনে এ প্রক্রিয়া তরান্বিত হয়ে আজ বিদ্যুৎ পাহাড়কে আলোকিত করলো। কচ্ছপিয়া এখন অন্ধকার নয়-আলোর শহর। আজ এ প্রক্রিয়ার উদ্বোধনী । গত ১৫মে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রামুর কচ্ছপিয়া ইউনিয়নের গর্জনিয়া বাজার চত্ত্বরে কচ্ছপিয়ার হাজিরপাড়া ও মৌলভিকাটা গ্রামে বিদ্যুৎ সম্প্রসারণ কাজের উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে কক্সবাজার-৩ (সদর-রামু) আসনের সাংসদ সাইমুম সরওয়ার কমল এ মন্তব্য করেন। সভাটি আয়োজন করেন রামুর কচ্ছপিয়া ইউনিয়ন পরিষদ।
তিনি আরো বলেন,বিএনপি আগের মত নেই। তাঁরা এখন কাগজের বাঘ। তাদের হুঙ্কারে ভীত হওয়ার কোনো কারণ নেই। আগামী নির্বাচনে বিএনপির ৩০০ আসনে প্রার্থী দেওয়ার যোগ্যতাও আছে বলে মনে হয় না।’ এসময় সাংসদ আরো বলেন, আন্দোলন-সংগ্রামের মধ্যেই আওয়ামী লীগের জন্ম। নির্বাচিত হয়ে ৫ বছরের জন্য ক্ষমতায় এসেছে আওয়ামী লীগ। মেয়াদ শেষে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতা ছাড়বেন, কারো ভয় বা হুমকিতে নয়।
সাংসদ সাইমুম সরওয়ার কমল বলেন, ‘বর্তমান সরকারের আমলেই রামু-কক্সবাজারে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। শিক্ষাক্ষেত্রে এগিয়ে গেছে রামু। বিগত সময়ে বিএনপির সাংসদ লুৎফুর রহমান কাজলকেও সরকারি বরাদ্দ দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু তিনি উন্নয়ন না করে লুটপাট করেছেন। এই আসনে আবারও নৌকার জয় হলে দ্বিগুন উন্নয়ন হবে।’
কচ্ছপিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আবু মো.ইসমাইল নোমানের সভাপতিত্বে ও ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি নজরুল ইসলামের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন- রামু উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রিয়াজ উল আলম, জেলা পরিষদ সদস্য শামশুল আলম প্রমূখ।
ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি মনিরুল আলম, সাধারণ সম্পাদক শাহ আলম, ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লবা কর্মকার, ইউনিয়ন শ্রমিকলীগের সভাপতি আবু তালেব সিকদার ও ইউনিয়ন তাঁতীলীগের সভাপতি হানিফ ভুট্টো।
এসময় রামু উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আলী হোসেন, গর্জনিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সৈয়দ নজরুল ইসলাম, খুনিয়াপালং ইউপি চেয়ারম্যান সাংবাদিক আবদুল মাবুদ, চাকমারকুল ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম সিকদার, জোয়ারিয়ানালা ইউপি চেয়ারম্যান কামাল শামসুদ্দিন প্রিন্স, কাউয়ারখোপ ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তাক আহমদ, ফতেখাঁরকুল ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম ভুট্টো, গর্জনিয়া পুলিশ ফাঁড়ীর নবাগত পরিদর্শক আলমগীর হোসেন, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক নীতিশ বড়–য়া, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক তপন মল্লিক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবু বক্কর প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

Top