পাইপলাইনে এলএনজি সরবরাহ শুরু ১২ জুনের মধ্যেই

download-5-4.jpg

কক্সবাজার ডেস্ক :

তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) সরবরাহের নতুন সময় নির্ধারণ করেছে জ্বালানি বিভাগ। নতুন সময় অনুযায়ী ৬ থেকে ১২ জুনের মধ্যে যেকোনও দিন এলএনজি যোগ হবে জাতীয় গ্রিডে। এর আগে সাগরের তলদেশে নির্মিত পাইপলাইনে (সাব সি পাইপলাইন) সমস্যার কারণে দুই দফা পিছিয়ে গেছে তরল প্রাকৃতিক গ্যাস সরবরাহের তারিখ। সর্বশেষ শনিবার (২৬ মে) থেকে পাইপলাইনে এলএনজি সরবরাহের কথা ছিল। জ্বালানি বিভাগের যুগ্ম সচিব জনেন্দ্রনাথ সরকার বাংলা ট্রিবিউনকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
গত ৫ থেকে ৬ দিন ধরে এলএনজির পাইপলাইনের ত্রুটি সরাতে কাজ করছে এক্সিলারেট এনার্জির প্রকৌশলীরা। সবমিলিয়ে ১২দিনের মতো সময় লাগতে পারে বলে জানা গেছে।
গত ২৪ এপ্রিল এক্সিলারেট এনার্জি এলএনজির ভাসমান টার্মিনালটি কাতার থেকে বাংলাদেশে নিয়ে আসে। এরপর ১০ মে প্রথম দফায় এলএনজি সরবরাহের তারিখ ঠিক করা হলেও শেষে তা ঠিক রাখা সম্ভব হয়নি। এরপর ২৫ অথবা ২৬ মে দ্বিতীয়বারের মতো সময় ঠিক করা হলেও সরবরাহ শুরু করতে পারেনি এক্সিলারেট এনার্জি।
এ বিষয়ে জ্বালানি বিভাগের যুগ্ম সচিব জনেন্দ্রনাথ সরকার বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘জাহাজের নোঙ্গর বাঁধার জন্য সাগরের নিচের আটটি পয়েন্টের কাজ শেষ করা হয়েছে। স্থলভাগের পাইপলাইনের কাজ শেষ হয়েছে আরও একমাস আগে। কিন্তু জাহাজ থেকে স্থলভাগ পর্যন্ত আসতে সাব সি-এর ছোটখাটো কাজ বাকি আছে।এখন সেগুলোরই কাজ চলছে।’
তিনি বলেন, ‘বর্তমান আবহাওয়ার কারণে সাগর উত্তাল। এ কারণে সাগরের নিচে পাইপ লাইনের কাজ করা কঠিন হচ্ছে। সাব সি পাইপ লাইনের নির্মাণ কাজ এক্সিলারেট এনার্জির দায়িত্বে। জাহাজ থেকে যে পাইপ লাইনটি সাগরের তলদেশের পাইপ লাইনের সঙ্গে যুক্ত হবে, সেখানেই সমস্যা দেখা দিয়েছে। এক্ষেত্রে এক্সিলারেট এনার্জির ডুবরিরা কাজ করছেন। কিন্তু সাগর উত্তাল থাকায় ঠিক মতো কাজ করতে পারছে না।’

Top