উখিয়ায় কৃষককে মারধর করে ধানমাড়াই যন্ত্র ছিনতাই, আটক ২

download-1.jpg

স্টাফ রিপোর্টার, উখিয়া ষ

উখিয়ার লম্বরী পাড়া গ্রামে এক কৃষকের কাছ থেকে আধুনিক ধান মাড়াই যন্ত্র ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। খবর পেয়ে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ছিনতাই হওয়া কৃষি যন্ত্র উদ্ধার সহ দুইজনকে আটক করেছে।
জানা যায়, গত ৯ জুন উখিয়া উপজেলা পরিষদে ক্ষতিগ্রস্থ প্রান্তিক চাষীদের মাঝে ধান মাড়াই যন্ত্র সহ কৃষি উপকরণ বিতরণ করা হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক ও কক্সবাজার কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ পরিচালক উপস্থিত হয়ে চাষীদের মাঝে এসব যন্ত্র বিতরণ করেন।
উপজেলার জালিয়াপালং ইউনিয়নের লম্বরী পাড়া গ্রামের আবু বক্কর ছিদ্দিক (৬৫) স্থানীয় কৃষক মাঠ স্কুলের সভাপতি হিসেবে ওইদিন ধান মাড়াই যন্ত্র গ্রহণ করে। উক্ত ধান মাড়াই যন্ত্রটি সমিতির কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়ার পথে ছিনতাইয়ের শিকার হয়।
উখিয়া থানায় দায়েরকৃত এজাহার সূত্রে জানা গেছে, কৃষক আবু বক্কর ছিদ্দিকের ছেলে আব্দুল খালেক (৩৭) একটি টমটম যোগে উক্ত যন্ত্রটি নিয়ে যাওয়ার পথে একই এলাকার মৃত শাহাব মিয়ার পুত্র আব্দুল গফুর (৩০) আব্দু ছবির পুত্র আবু ছৈয়দ (৩২) সহ ৪/৫ জন চিহ্নিত সন্ত্রাসী পথে গতিরোধ করে আব্দুল খালেককে মারধর পূর্বক ধান মাড়াই যন্ত্রটি ছিনতাই করে নিয়ে যায়।
এব্যাপারে উখিয়া থানায় অভিযোগ করা হলে, এস আই মোর্শেদ রাতে অভিযান চালিয়ে আব্দুল গফুরের বাড়ি হতে ছিনতাই হওয়া যন্ত্রটি উদ্ধার করে এবং ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে গফুর ও আবু ছৈয়দকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।
থানা সূত্রে জানা যায়, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার পরামর্শে ছিনতাই হওয়া ধান মাড়াই যন্ত্রটি জালিয়াপালং ইউনিয়ন চেয়ারম্যান নুরুল আমিন চৌধুরীকে জিম্মায় দিয়ে একই সাথে আটককৃত যুবকদেরকে মুছলেকা নিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়। এ ব্যাপারে আব্দুল খালেক বাদী হয়ে আব্দুল গফুর, আবু ছৈয়দ, মামুনুর রশিদ, আব্দু ছবিকে বিবাদী করে উখিয়া থানায় এজাহার দায়ের করেছে। বাদী অভিযোগ করে বলেন, সন্ত্রাসীরা তাকে মারধর করে নগদ টাকা কেড়ে নেয়।

Top