বৃষ্টি ও বাতাসে রোহিঙ্গাদের ৮৫৫ ঘর ক্ষতিগ্রস্ত

rohingya-1528632977998.jpg

কক্সবাজার রিপোর্ট :

দুই দিনের ভারী বৃষ্টি ও ঝড়ো বাতাসে রোহিঙ্গাদের ৮৫৫টি ঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। নানাভাবে ক্ষতির শিকার হয়েছেন ২ হাজার ৯৮ পরিবারের ৯ হাজার ১১৪ জন রোহিঙ্গা। এছাড়াও ৪টি পানির উৎস, ১২৭টি পায়খানা, একটি স্বাস্থ্য সেবা কেন্দ্র ও দুইটি খাদ্য বিতরণ কেন্দ্র ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। রোহিঙ্গাদের নিয়ে কাজ করা বেসরকারি সংস্থাগুলোর জোট ইন্টার সেক্টর কো-অর্ডিনেশন গ্রুপ (আইএসসিজি) গতকাল এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানিয়েছে।
আইএসসিজি জানায়, ক্ষতিগ্রস্ত রোহিঙ্গাদের মধ্যে ৬ হাজার ৪ জন (৬৬ শতাংশ) ঝড়ো বাতাসের কারণে, ২ হাজার ৪৭২ জন (২৭ শতাংশ) কম মাত্রার ভূমিধসে, ৩৮১ জন (৪ শতাংশ) জলাবদ্ধতার, ১৯২ জন (২ শতাংশ) বজ্রপাতে, ১২ জন বন্যায় এবং ৬৫ জন অন্যান্য কারনে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে (১ শতাংশ)। এছাড়াও কুতুপালং ক্যাম্পের রাস্তাটি ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।
সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ক্ষতিগ্রস্ত সড়ক, কালভার্ট, নিস্কাশন খাল, সেতু, ঘর ও কমিউনিটি স্ট্রাকচার দৃঢ়, মেরামত ও পুনর্বাসনের কাজ চলছে। ইতোমধ্যে ঝুঁকিতে থাকা ২০ হাজার রোহিঙ্গাকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। আরও যারা ঝুঁকিতে রয়েছে তাদেরও পর্যায়ক্রমে নিরাপদ স্থানে সরানো হবে।

Top