চকরিয়ায় বিদ্যুৎ¯পৃষ্টে নিহত ১, আহত ৩

download-2-7.jpg

স্টাফ রিপোর্টার, চকরিয়া :

চকরিয়ায় পল্লীবিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষের চরম অবহেলা জনিত কারণে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে এক যুবক নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরো ৩ জন। নিহত রোকন মিয়া (২৭) ডুলাহাজারা ইউনিয়নের ডুমখালী রিজার্ভ পাড়া এলাকার প্রতিবন্ধী জাফর আহমদের পুত্র। মঙ্গলবার (১২ জুন) সকাল ১১টার দিকে এ ঘটনাটি ঘটে। এলাকাবাসী ও বিদ্যুৎ অভিজ্ঞরা জানান, পূর্ব ডুমখালী এলাকায় মিলন কান্তি, বাদল কান্তিসহ তিনটি ব্যবসায়ীক সেচ মোটর ও ১০-১৫টি আবাসিক মিটার রয়েছে। এসব মিটারের ট্রান্সফরমায় মহাসড়ক থেকে ১১ হাজার ভোল্টের পল্লী বিদ্যুতের আর্থিন বিহিন শুধুমাত্র এক তারের মাধ্যমে সরাসরি সংযোগ নেওয়া হয়েছে। গাছপালা বিশিষ্ট প্রায় ৩ কিঃমিঃ গ্রামের পথ দিয়ে এগার হাজার ভোল্টের আর্থিনবিহীন সিঙ্গেল সংযোগটি সঞ্চালন অত্যন্ত বিপজ্জনক বলে দাবী করেন বিদ্যুৎ অভিজ্ঞরা। এদিকে ঘটনার স্থান পূর্ব ডুমখালী রিজার্ভ পাড়ার সমশুদ্দীনের চায়ের দোকান সংলগ্ন একটি খুঁটিতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে হতাহতের এ ঘটনাটি ঘটে। বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষের অবহেলা জনিত ঢিল সংযোগে খুঁটির তারের ইনসুলেটরটি ভেঙ্গে যায়। তিনদিন বিদ্যুৎ বন্ধের সময় বাতাস ও বৃষ্টিতে এগার হাজার ভোল্টের ওই তারটির ঘর্ষণে ইনসুলেটর ভেঙ্গে লোহার রড দিয়ে খুঁটির সাথে তার সংযুক্ত হয়ে যায়। ঘটনার সময় এক মিনিট কাছাকাছি সময়ের জন্য বিদু্যুৎ সংযোগ দেওয়া হলে দুর্ঘটনার সম্মুখীন হয়। তাৎক্ষণিক ওই ভেজা খুঁটি থেকে মাটিতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে দোকানে বসে থাকা রোকন মিয়া ঘটনাস্থলে নিহত হয়। এসময় আহত তিন যুবককে উদ্ধার করে নিকটস্থ হাসপাতালে নিয়ে যায় উপস্থিত লোকজন। উপস্থিতিরা বলেন বিদ্যুতের স্থায়িত্ব এক মিনিটের বেশি থাকলে হয়তো দোকানের অবস্থান করা ৬-৭ জন কাউকে বাঁচানো সম্ভব হতো না। এদিকে নিহত যুবক রোকন মিয়া ছিল পেরালাইসিস রোগে আক্রান্ত পিতার একমাত্র আয়ের উৎস। পুত্র মৃত্যুতে তার ভিক্ষা করা ছাড়া আর কোন উপায় রইলনা বলে জানায় তার এলাকাবাসী। বিদু্যুৎ কর্তৃপক্ষ এ পর্যন্ত নিহত পরিবারের কোন খবরাখবর নেয়নি বলেও জানায় তারা। ডুলাহাজারা ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান শওকত আলী বিদ্যুৎস্পৃষ্টে যুবক নিহতের সত্যতা নিশ্চিত করেন। এ ব্যাপারে কক্সবাজার পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির চকরিয়া ব্রাঞ্চের ডিজিএম মোছাদ্দেক হোছাইন বলেন বিষয়টি আমি শুনিনি। আমি এখনি খবর নিচ্ছি। এব্যাপারে কক্সবাজার পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির জিএম নুর মোহাম্মদ আজম মজুমদার বলেন বিষয়টি আমাকে কেউ জানায়নি এবং এব্যাপারে আমি অবগত নই।

Top