‘বিএনপি প্রার্থীকে লাখো ভোটে পরাজিত করা হবে’- এমপি কমল

ramu-pic-mp-komol-25.3.18.jpg

স্টাফ রিপোর্টার, রামু :
কক্সবাজার-৩ (সদর-রামু) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ¦ সাইমুম সরওয়ার কমল বলেছেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থীকে লাখো ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করা হবে। সরকারের নানামুখি উন্নয়ন কর্মকান্ডে মানুষ এখন উন্নত জীবন-যাপন করতে পারছে। তাই আগামী নির্বাচনে নৌকার বিজয় কেউ ঠেকাতে পারবে না।
সাংসদ কমল বলেন, প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে কক্সবাজার জেলা এখন উন্নয়নের আলোয় আলোকিত। উন্নয়ন কর্মকান্ডের গতি মানুষের চাওয়াকে অতিক্রম করেছে। গ্রাম থেকে শহর কোথাও এখন জরাজীর্ণ সড়ক নেই। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি বেড়েছে শিক্ষার মান। কক্সবাজার-রামুতে বিশে^র উন্নয়নশীল শহরে পরিনত করতে হলে আগামীতে প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে আবারো প্রধানমন্ত্রী আসনে অধিষ্ঠিত করতে হবে। এজন্য নৌকা প্রতীককে বিজয়ী করার কোন বিকল্প নেই।
শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ বিশে^র উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হওয়ায় আয়োজিত বিশাল আনন্দ সমাবেশ ও কক্সবাজার জেলা আইনজীবি সমিতি এবং রামু চৌমুহনী বণিক সমবায় সমিতি লি. নির্বাচনে বিজয়ীদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমপি কমল এসব কথা বলেন।
রবিবার (২৫ মার্চ) সন্ধ্যায় রামু চৌমুহনী স্টেশন চত্বরে আয়োজিত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন, বিশিষ্ট আওয়ামীলীগ নেতা, কক্সবাজার জেলা পরিষদ সদস্য ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান শামসুল আলম।
অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত অতিথিদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, কক্সবাজার জেলা আইনজীবি সমিতির নব নির্বাচিত সভাপতি বিশিষ্ট আওয়ামীলীগ নেতা এডভোকেট নুরুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক এডভোকেপ ইকবালুর রশিদ আমিন সোহেল, রামু চৌমুহনী বণিক সমবায় সমিতি লি. নির্বাচনে নব নির্বাচিত সভাপতি অধ্যাপক রফিকুল আলম চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক আফসার কামাল।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, রামু উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগ সভাপতি রিয়াজ উল আলম, কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি জাফর আলম চৌধুরী, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মুসরাত জাহান মুন্নী, কক্সবাজার জেলা পরিষদ সদস্য নুরুল হক কোম্পানী, আওয়ামীলীগ নেতা মুক্তিযোদ্ধা ফরিদ আহমদ মাস্টার, রামু উপজেলা ইউপি চেয়ারম্যান সমিতির সভাপতি ও চাকমারকুল ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম সিকদার, সাধারণ সম্পাদক ফতেখাঁরকুল ইউপি চেয়ারম্যান ফরিদুল আলম, খুনিয়াপালং ইউপি চেয়ারম্যান সাংবাদিক আবদুল মাবুদ, গর্জনিয়া ইউপি চেয়ারম্যান সৈয়দ নজরুল ইসলাম, দক্ষিণ মিঠাছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান ইউনুচ ভূট্টো, কচ্ছপিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আবু ইসমাইল মো. নোমান, কাউয়ারখোপ ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তাক আহমদ, রাজারকুল ইউপি চেয়ারম্যান মুফিজুর রহমান, রশিদনগর ইউপি চেয়ারম্যান এমডি শাহ আলম।
জেলা মৎস্যজীবিলীগ নেতা আনছারুল হক ভূট্টো ও আওয়ামীলীগ নেতা সৈয়দ মো. আবদু শুক্কুরের সঞ্চালনায় সমাবেশে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম ভূট্টো, উপজেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক নীতিশ বড়–য়া, যুবলীগ নেতা পলক বড়–য়া আপ্পু, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ সাধারণ সম্পাদক তপন মল্লিক, উপজেলা যুবলীগের অর্থ সম্পাদক আবছার কামাল সিকদার, দপ্তর সম্পাদক শাহাদাৎ হোসেন, উপজেলা যুবলীগ নেতা নবীউল হক আরকান, উপজেলা ওলামালীগ সভাপতি মাওলানা নুরুল আজিম, সাংসদ কমলের একান্ত সচিব ও জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা মিজানুর রহমান, উপজেলা যুবলীগে স্বেচ্ছাসেবকলীগের সহ সম্পাদক আবু বক্কর ছিদ্দিক, ফতেখাঁরকুল ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি আজিজুল হক আজিজ, উপজেলা সৈনিকলীগ সভাপতি মিজানুল হক রাজা, সাধারণ সম্পাদক রাশেদুল হক বাবু, উপজেলা তাঁতীলীগ সভাপতি নুরুল আলম জিকু, উপজেলা শ্রমিকলীগ আহবায়ক শফিউল আলম কাজল, যুগ্ন আহবায়ক সাহাব উদ্দিন, ছাত্রলীগ নেতা সাদ্দাম হোসেন, মোহাম্মদ নোমান, বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদের সভাপতি একরামুল হাসান ইয়াছিন, উপজেলা বাস্তুহারা লীগ সভাপতি আবুল কালাম, রশিদনগর স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মিজানুর রহমান প্রমুখ। সমাবেশকে ঘিরে বিকাল থেকে চৌমুহনী ষ্টেশন ও আশপাশের এলাকা লোকে লোকারণ্য হয়ে উঠে। সমাবেশে রামু উপজেলা এবং ১১টি ইউনিয়ন ও তৃণমূল পর্যায়ের আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, কৃষক লীগ, বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগ, শ্রমিক লীগ, বাস্তুহারা লীগ, বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদসহ বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের হাজার হাজার নেতাকর্মী মিছিল সহকারে অংশ নেন।

Top