চকরিয়ায় হত্যাকাণ্ডের শিকার আনাছের মায়ের কান্না এখনও থামেনি

Zahir-Pic-Chakaria-11.07.2018-1.jpg

চকরিয়া অফিস :
চকরিয়া পৌর শহরের ৬ নং ওয়ার্ড়ের কাহারিয়া ঘোনা গ্রামের নৃশংস হত্যাকান্ডের শিকার কিশোর আনাছ উদ্দিনের মায়ের কান্না এখনও থামছে না। গত বছরের ৬জুলাই কাহারিয়া ঘোনার জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে কিশোর মোঃ আনাছ উদ্দিন(১৮)কে সোহেল প্রকাশ সেহিল্যা নামের এক বখাটে যুবক প্রকাশ্যে ছুরিকাঘাত করে তাকে হত্যা করে। এ ঘটনায় একই এলাকার নুরুল কবিরের ছেলে সোহেল প্রকাশ সেহিল্যা(২৫)কে আসামী করে নিহত মোঃ আনাছ উদ্দিনের মা ছেনুয়ারা(৫০) বাদী হয়ে চকরিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেছিল। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা চকরিয়া থানার এসআই সুকান্ত চৌধুরী গত ২৭ অক্টোবর ওই মামলার অভিযোগপত্র গঠন করে আদালতে জমা দিয়েছেন।
ছেনুয়ারা বেগম জানান, আমার ছেলের মোবাইলটি সোহেল প্রকাশ সেহিল্যা কেড়ে নিয়ে পালিয়ে যায়। মোবাইল সেটটি ফেরত চাওয়ায় আমার ছেলেকে গত বছরের ৬ জুলাই সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় প্রকাশ্যে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করেেেছ। আমার স্বামী জাহাঙ্গীর আলম মানসিক ভারসাম্যহীন ব্যক্তি। আনাছ উদ্দিন পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি ছিলেন। আনাছ উদ্দিন রাজ মেস্ত্রীর কাজ করে সংসার চালাতো। ছেনুয়ারা জানান; আনাছ উদ্দিন মারা যাওয়ার পর থেকে আমার হাতে কোন কাজ উঠে না, ছেলের কথা বারবার মনে পড়ে, ছেলের জন্য কান্না ছাড়া আর কিছু করতে পারি না, মাথাও ঠিক রাখতে পারছি না। তিনি আরও মামলা করায় এখনও অনেকে আমাকে বিভিন্নভাবে হুমকি দিয়ে যাচ্ছে। চকরিয়া থানার এসআই মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা জানান; তিনি মামলাটি সুষ্টু তদন্ত করে নুরুল কবিরের ছেলে সোহেল প্রকাশ সেহিল্যার বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র গঠন করে আদালতে প্রেরণ করেছেন।

Top