ভারুয়াখালীতে আদালতের নিষেধাজ্ঞাদেশ অমান্য করে জমি দখলের চেষ্টা

images.png

বার্তা পরিবেশক :
ভারুয়াখালীতে আদালতের নিষেধাজ্ঞাদেশ অমান্য করে জমি দখলের চেষ্টার খবর পাওয়া গেছে। গত ৯ জুলাই ভারুয়াখালীর স্থানীয় করিম সিকদার পাড়ায় এঘটনা ঘটে।
জানা যায়, সদর উপজেলার ভারুয়াখালীতে বিগত ৯ জুলাই দিবাগত রাত ৩টায় দিকে স্থানীয় করিম সিকদার পাড়ার বাসিন্দা মৃত আমির হোছাইনের পুত্র আবুল হোছাইনের স্বত্ব-দখলীয় বসত ভিটির পার্শ্ববর্তী জমি স্থানীয় ভূমি দস্যু করিম সিকদার পাড়ার আবদুল হাকিমের পুত্র সন্ত্রাসী জসিম উদ্দিন খোকনের নেতৃত্বে অবৈধ দেশীয় অস্ত্রে-শস্ত্রে সজ্জিত ১০-১২ জন ভাড়াটে সন্ত্রাসী কর্তৃক জবর-দখল করার চেষ্টা করে। ঘটনার সময় ভূমিদস্যু জসিম উদ্দিন খোকন গং অবৈধ অস্ত্রের দ্বারা ৫-৬ রাউন্ড গুলি ব্ল্যাঙ্ক ফায়ার করে জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টি করে জমি জবর দখল করার চেষ্টা করে।
মামলা সূত্রে জানা যায়, উক্ত জমি নিয়ে আবুল হোছাইন বাদী হয়ে জসিম উদ্দিন খোকন সহ আবদুল হাকিম গং-কে বিবাদী বরে বিজ্ঞ সিনিয়র সহকারী জজ আদালত, কক্সবাজারে চলমান অপর- ৬৩/২০১৮ ইং নম্বর মোকদ্দমা দায়ের করেন। উক্ত মোকদ্দমায় বিজ্ঞ আদালত শুনানিক্রমে বিগত ১৬/০৪/২০১৮ ইং তারিখে দোতর্ফাসূত্রে প্রচারিত ০৭ নং আদেশ দ্বারা জসিম উদ্দিন খোকন গং এর বিরুদ্ধে অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞাদেশ প্রচার করে।
দেওয়ানী আদালতের নিষেধাজ্ঞাদেশ তোয়াক্কা না করে গায়ের জোরে জমি জবর-দখল করার চেষ্টা করা হয় এবং ইতিপূর্বেও ১৯/০৫/২০১৮ ইং তারিখেও জসিম উদ্দিন খোকন গং প্রকাশ্য দিবালোকে নতুন গাছের খুঁটি ও কাল পলিথিনের ত্রিপল দিয়ে জমি অবৈধভাবে দখল করার ও ঘেড়া-বেড়া দেওয়ার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়। উল্লেখ্য যে, আবুল হোছাইন পেশা উপলক্ষে স্ব-পরিবারে কক্সবাজার শহরে বসবাস করার সুযোগে একই এলাকার সন্ত্রাসী জসিম উদ্দিন খোকন গং বে-আইনী পন্থায় জোরপূর্বক জমি জবর দখল করার প্রচেষ্টায় নিয়ত আছে।

Top