টেকনাফে বসতঘরে গুলিবর্ষণ করে সন্ত্রাসী হামলা, ভাংচুর ও লুটপাট, আহত ২

download.jpg

বার্তা পরিবেশক :
টেকনাফ সদর ইউনিয়নের পূর্ব গোদারবিলে গতকাল রাত সাড়ে ১০টার দিকে নুরুল হক কালুর বসতবাড়িতে সন্ত্রাসী হামলা,গুলিবর্ষণ, ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। এসময় ২ মহিলা আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে এবং আহতদের কক্সবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, টেকনাফ সদরের গোদারবিল এলাকার নজির আহমদের পালিত কুকুর সাধারণ মানুষসহ গরু-ছাগলকে প্রায় সময় কামড় দিয়ে আসছিল। এবিষয়ে নজির আহমদকে অনেকবার জানানো হয়। উল্টো নজির আহমদ বলে উঠে সবাইকে কামড় দিবে, তাতে সে কিছু করবে না। বিষয়টি নুরুল আলম চেয়ারম্যানকে বলা হলে তাদেরকে নিষেধ করে। এর বিচারের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে পূর্ব গোদারবিল এলাকার মৃত আবদুল সালামের ছেলে নজির আহমদ, নজির আহমদের ছেলে নুরুল আবছার, অলি আহমদের ছেলে সাইফুল ইসলাম, নজির আহমদের স্ত্রী জুহুরা ও মেয়ে বেঙ্গার নেতৃত্বে ৬-৭ জন সন্ত্রাসী দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র, দা, কিরিচ নিয়ে বতবাড়িতে হামলা চালায় ও ভাংচুর করে স্বর্ণালংকারসহ নগদ ২ লাখ ৫৬হাজার টাকা ও মূল্যবান মালামাল লুট করে নিয়ে যায়।
এসময় বাঁধা দিলে নুরুল হকের স্ত্রী হাকিমা খাতুন (৪০) ও ফিরুজ মিয়ার স্ত্রী তৈয়ুবা বেগমকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। পরে তাদেরকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।
অভিযোগের বিষয়ে টেকনাফ থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রনজিত বড়–য়া বলেন, বিষয়টি শুনেছি, অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Top